আবদুল মুত্তালিব | বংশানুক্রম এবং হাতির বছর | মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাঃ জীবন

মহানবি মুহাম্মদের (সা) পিতামহের নাম ছিল আবদুল মুত্তালিব। তবে এটি তাঁর আসল নাম নয়। তাঁর আসল নাম ছিল শায়বাত আল হামদ। শায়বা’ অর্থ হলো সাদা চুল (সাধারণত বৃদ্ধ অবস্থায় মানুষের চুলের রঙ যেমন হয়)। জন্মের সময় আবদুল ‘মুত্তালিবের চুলের কিছু অংশ ছিল সাদা। ফলে তার নাম রাখা হয়েছিল ‘শায়বাতুল হামদ’ অর্থাৎ প্রশংসার শায়বা ।

 

আবদুল মুত্তালিব | বংশানুক্রম এবং হাতির বছর | মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাঃ জীবন

 

আবদুল মুত্তালিব | বংশানুক্রম এবং হাতির বছর | মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাঃ জীবন

শায়বাতুল হামদের মা যখন গর্ভবতী ছিলেন তখন তাঁর স্বামী হাশিম মারা যান। তিনি কাউকে জানাননি, এমনকি তাঁর ভাইদেরও জানাননি যে তিনি তখন গর্ভবতী ছিলেন। কারণ তিনি উদ্বিগ্ন ছিলেন যে জানাজানি হলে জন্মের পর তাঁর বাচ্চাকে তাঁর কাছ থেকে নিয়ে যাওয়া হতে পারে। তাই স্বামী মারা গেলে তিনি ইয়াসরিবে ফিরে যান, এবং সেখানেই তাঁর সন্তানের জন্ম হয়।

জানা যায়, একদিন শায়বাতুল হামদের চাচা (তাঁর নাম ছিল মুত্তালিব) ইয়াসরিবে সফরে যান। সেখানে তিনি জানতে পারেন যে শায়বা তাঁর ভাতিজা। তখন তিনি শায়বাকে মক্কায় ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য এক ফন্দি আঁটেন। তিনি আসলে শিশুটিকে অনেকটা অপহরণ করেই নিয়ে যান। কেউ কেউ বলে, তিনি শিশুটিকে মক্কায় তার বংশগৌরবের কথা শুনিয়ে প্ররোচিত করেছিলেন। আবার কেউ কেউ বলে, শায়বার মা বিষয়টিতে রাজি ছিলেন। তবে অবশ্যই তার মামারা বিষয়টি জানতেন না।

 

islamiagoln.com google news
আমাদের গুগল নিউজে ফলো করুন

 

মুত্তালিব এক সুযোগে শিশুটিকে উটের পিঠে উঠিয়ে নিয়ে মক্কায় চলে যান। মক্কার লোকেরা যখন দেখে যে তিনি একটি বাচ্চা ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে এসেছেন, তখন তারা ধরেই নেয় যে তিনি ছেলেটিকে কিনে এনেছেন। সবাই ছেলেটিকে ‘আবদুল-মুত্তালিব (অর্থাৎ মুত্তালিবের দাস) নামে ডাকা শুরু করে। তখন থেকেই মক্কায় তাঁর নাম হয়ে যায় আবদুল-মুত্তালিব । আবদুল-মুত্তালিবের মক্কায় আসার পর তাঁর চাচা ও চাচাতো ভাইদের সঙ্গে কিছুটা সমস্যা হচ্ছিল।

 

আবদুল মুত্তালিব | বংশানুক্রম এবং হাতির বছর | মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাঃ জীবন

 

তাঁর বাবা আগেই মারা যাওয়ার ফলে সম্পত্তির সিংহভাগ চাচারা নিয়ে নিয়েছিল। কিন্তু আবদুল-মুত্তালিব নিজের যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে দাদার সম্পত্তিতে তাঁর পিতার অংশের উত্তরাধিকার ফিরে পেয়েছিলেন। শুধু তাই নয়, তিনি নিজেই পর্যায়ক্রমে তাঁর বংশের এক ঐতিহ্যগত উত্তরাধিকার সৃষ্টি করেছিলেন।

আবদুল মুত্তালিবের জীবদ্দশায় ঐতিহাসিকভাবে উল্লেখযোগ্য বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটে। সেগুলোর মধ্যে প্রধান তিনটি হলো:

১। জমজমের পুনরাবিষ্কার

২। আবদুল্লাহকে কোরবানি করার জন্য তাঁর ব্রত;

৩। আবরাহা ও হাতির আক্রমণ ।

আরো পড়ূনঃ

 

Leave a Comment