সূরা বাকারা আয়াত ১৭৮ | সূরা বাকারা [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । মাদানী সূরা । আল কুরআন

সূরা বাকারা আয়াত ১৭৮ ,আল বাকারা (আরবি ভাষায়: سورة البقرة) মুসলমানদের পবিত্র ধর্মীয় গ্রন্থ কুরআনের দ্বিতীয় সূরা, এর আয়াত সংখ্যা ২৮৬ টি এবং এর রূকুর সংখ্যা ৪০ টি। আল বাকারা সূরাটি মদিনায় অবতীর্ণ হয়েছে।

সূরা বাকারা আয়াত ১৭৮

সূরা বাকারা আয়াত ১৭৮
সূরা বাকারা আয়াত ১৭৮

সূরা বাকারা

হে ঈমানদারগন! তোমাদের প্রতি নিহতদের ব্যাপারে কেসাস গ্রহণ করা বিধিবদ্ধ করা হয়েছে। স্বাধীন ব্যক্তি স্বাধীন ব্যক্তির বদলায়, দাস দাসের বদলায় এবং নারী নারীর বদলায়। অতঃপর তার ভাইয়ের তরফ থেকে যদি কাউকে কিছুটা মাফ করে দেয়া হয়, তবে প্রচলিত নিয়মের অনুসরণ করবে এবং ভালভাবে তাকে তা প্রদান করতে হবে। এটা তোমাদের পালনকর্তার তরফ থেকে সহজ এবং বিশেষ অনুগ্রহ। এরপরও যে ব্যাক্তি বাড়াবাড়ি করে, তার জন্য রয়েছে বেদনাদায়ক আযাব।

O you who believe! Al-Qisâs (the Law of Equality in punishment) is prescribed for you in case of murder: the free for the free, the slave for the slave, and the female for the female. But if the killer is forgiven by the brother (or the relatives, etc.) of the killed against blood money, then adhering to it with fairness and payment of the blood money, to the heir should be made in fairness. This is an alleviation and a mercy from your Lord. So after this whoever transgresses the limits (i.e. kills the killer after taking the blood money), he shall have a painful torment.

يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُواْ كُتِبَ عَلَيْكُمُ الْقِصَاصُ فِي الْقَتْلَى الْحُرُّ بِالْحُرِّ وَالْعَبْدُ بِالْعَبْدِ وَالأُنثَى بِالأُنثَى فَمَنْ عُفِيَ لَهُ مِنْ أَخِيهِ شَيْءٌ فَاتِّبَاعٌ بِالْمَعْرُوفِ وَأَدَاء إِلَيْهِ بِإِحْسَانٍ ذَلِكَ تَخْفِيفٌ مِّن رَّبِّكُمْ وَرَحْمَةٌ فَمَنِ اعْتَدَى بَعْدَ ذَلِكَ فَلَهُ عَذَابٌ أَلِيمٌ

সূরা বাকারা আয়াত ১৭৮
সূরা বাকারা আয়াত ১৭৮

Ya ayyuha allatheena amanoo kutiba AAalaykumu alqisasu fee alqatla alhurru bialhurri waalAAabdu bialAAabdi waalontha bialontha faman AAufiya lahu min akheehi shay-on faittibaAAun bialmaAAroofi waadaon ilayhi bi-ihsanin thalika takhfeefun min rabbikum warahmatun famani iAAtada baAAda thalika falahu AAathabun aleemun

YUSUFALI: O ye who believe! the law of equality is prescribed to you in cases of murder: the free for the free, the slave for the slave, the woman for the woman. But if any remission is made by the brother of the slain, then grant any reasonable demand, and compensate him with handsome gratitude, this is a concession and a Mercy from your Lord. After this whoever exceeds the limits shall be in grave penalty.

PICKTHAL: O ye who believe! Retaliation is prescribed for you in the matter of the murdered; the freeman for the freeman, and the slave for the slave, and the female for the female. And for him who is forgiven somewhat by his (injured) brother, prosecution according to usage and payment unto him in kindness. This is an alleviation and a mercy from your Lord. He who transgresseth after this will have a painful doom.

SHAKIR: O you who believe! retaliation is prescribed for you in the matter of the slain, the free for the free, and the slave for the slave, and the female for the female, but if any remission is made to any one by his (aggrieved) brother, then prosecution (for the bloodwit) should be made according to usage, and payment should be made to him in a good manner; this is an alleviation from your Lord and a mercy; so whoever exceeds the limit after this he shall have a painful chastisement.

KHALIFA: O you who believe, equivalence is the law decreed for you when dealing with murder – the free for the free, the slave for the slave, the female for the female. If one is pardoned by the victim’s kin, an appreciative response is in order, and an equitable compensation shall be paid. This is an alleviation from your Lord and mercy. Anyone who transgresses beyond this incurs a painful retribution.

সূরা বাকারা আয়াত ১৭৮
সূরা বাকারা আয়াত ১৭৮

১৭৮। হে মুমিনগণ! হত্যার ব্যাপারে কিসাসের ১৮২ বিধান দেয়া হলো ১৮৩। স্বাধীন ব্যক্তির পরিবর্তে স্বাধীন ব্যক্তি, ক্রীতদাসের বদলে ক্রীতদাস ও নারীর বদলে নারী। কিন্তু যদি নিহত ব্যক্তির ভাই এর ১৮৪ পক্ষ থেকে কিছুটা ক্ষমা প্রদর্শন করা হয় তবে, ন্যায়সঙ্গত দাবী মেনে নাও ১৮৫ এবং কৃতজ্ঞতার সাথে তাকে ক্ষতিপূরণ দাও। এটা তোমার প্রভুর নিকট থেকে সুবিধা প্রদান এবং অনুগ্রহ। এরপরে যে কেহ সীমানা অতিক্রম করবে তার জন্য আছে ভয়াবহ শাস্তি।

১৮২। লক্ষ্য করুণ এই আয়াতটিতে এবং এর পরবর্তী আয়াতটিতে ইসলাম পূর্বাবস্থায় প্রতিহিংসার যে ব্যাপকতা তার ভয়াবহতা অনেকটা হ্রাস করা হয়েছে। এই আয়াতটিতে ন্যায় এর প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে সমতার ভিত্তিতে তবে কেউ যদি ক্ষমা প্রদর্শন করতে পারে সেটা হচ্ছে সর্বোত্তম।

‘কিসাস’ শব্দটির অর্থ হচ্ছে ‘জানের বদলে জান’ এ ধরণের হত্যার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। ইসলামের পূর্বে আরবে গোত্রে গোত্রে রক্তক্ষয়ী বদলা বংশ পরম্পরায় চলতো। তাতে অনেক নিরাপরাধ লোকও মৃত্যুমুখে পতিত হতেন। ইসলাম তা অনুমোদন করে না। ইসলামের নিয়ম হচ্ছে ‘জানের বদলে জান’। তবে সর্ব সম্মতিক্রমে দয়া প্রদর্শন হচ্ছে সর্বোত্তম, এমনকি জানের পরিবর্তে ক্ষতিপূরণ দানও আল্লাহ্‌র কাছে অধিক গ্রহণযোগ্য।

ইসলামে সমতার আইনে [Law of equality] তিন ধরণের লোকের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। স্বাধীন ব্যক্তির পরিবর্তে স্বাধীন ব্যক্তি, এখানে মেয়ে বা পুরুষ, ধনী বা দরিদ্রের কোন পার্থক্য নাই। একজন ধনী ও প্রভাবশালী ব্যক্তির পরিবর্তে দু’জন গরীব স্বাধীন ব্যক্তি হতে পারে না। একজন ক্রীতদাসের পরিবর্তে একজন ক্রীতদাস, একজন মহিলার পরিবর্তে একজন মহিলা।

স্বাধীন মেয়েদের কথা আলাদাভাবে উল্লেখ করা হয়েছে এর কারণ এটা নয় তারা সমাজে ছোট বা হেয়। তারা সন্তানের মা। এই হিসেবে সমাজে তাদের অন্য আর এক অবস্থান আছে। ইসলামে ন্যায়-নীতি এরকম সুশৃঙ্খল যে, একজনের হত্যার পরিবর্তে বহু জানের সমাপ্তি হতে পারে না-যা সে সময়ে আরবদের মধ্যে গোত্রগত বিবাদের ফলে ঘটতো। কিন্তু যদি ক্ষতিগ্রস্থ দল ক্ষমা প্রদর্শন করে সেটাই সর্বোত্তম।

সূরা বাকারা আয়াত ১৭৮
সূরা বাকারা আয়াত ১৭৮

১৮৩। ‘কিসাস’ প্রযোজ্য শুধুমাত্র বিবাদ বিসংবাদ, ঝগড়া-ঝাটির সময়ে। ভুলক্রমে বা দুর্ঘটনায় মৃত্যুর ব্যাপারে ‘কিসাস’ প্রযোজ্য নয়।
১৮৪। ‘ভাই’ এই আয়াতের এই শব্দটির অর্থ অনেক ব্যাপক ইসলামে সবাই ভাতৃবন্ধনে আবদ্ধ।

১৮৫। যদি ক্ষতিগ্রস্থ পক্ষ ক্ষমা করে দেয়, তবে অন্য পক্ষের সব শাস্তি মাফ হতে পারে।

আরও দেখুনঃ 

সূরা বাকারা পর্ব ৭ । সূচি । [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

সূরা বাকারা পর্ব ৬ । সূচি । [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

সূরা বাকারা পর্ব ৫ । সূচি । [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

সূরা বাকারা পর্ব ৪ । সূচি । [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

সূরা বাকারা পর্ব ৩ । সূচি । [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

সূরা বাকারা পর্ব ২ । সূচি । [ গাভী কুরবানী ] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

সূরা বাকারা পর্ব ১ । সূচি । [ গাভী কুরবানী ] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

নাপাকি এবং নাপাকি থেকে পবিত্রতা অর্জনের উপায়

 

 

Leave a Comment