সূরা বাকারা আয়াত ২৩৭ | সূরা বাকারা [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । মাদানী সূরা । আল কুরআন

সূরা বাকারা আয়াত ২৩৭ ,আল বাকারা (আরবি ভাষায়: سورة البقرة) মুসলমানদের পবিত্র ধর্মীয় গ্রন্থ কুরআনের দ্বিতীয় সূরা, এর আয়াত সংখ্যা ২৮৬ টি এবং এর রূকুর সংখ্যা ৪০ টি। আল বাকারা সূরাটি মদিনায় অবতীর্ণ হয়েছে।

সূরা বাকারা আয়াত ২৩৭

সূরা বাকারা আয়াত ২৩৭
সূরা বাকারা আয়াত ২৩৭

বাকারা

আর যদি মোহর সাব্যস্ত করার পর স্পর্শ করার পূর্বে তালাক দিয়ে দাও, তাহলে যে, মোহর সাব্যস্ত করা হয়েছে তার অর্ধেক দিয়ে দিতে হবে। অবশ্য যদি নারীরা ক্ষমা করে দেয় কিংবা বিয়ের বন্ধন যার অধিকারে সে (অর্থাৎ, স্বামী) যদি ক্ষমা করে দেয় তবে তা স্বতন্ত্র কথা। আর তোমরা পুরুষরা যদি ক্ষমা কর, তবে তা হবে পরহেযগারীর নিকটবর্তী। আর পারস্পরিক সহানুভূতির কথা বিস্মৃত হয়ো না। নিশ্চয় তোমরা যা কিছু কর আল্লাহ সেসবই অত্যন্ত ভাল করে দেখেন।

And if you divorce them before you have touched (had a sexual relation with) them, and you have appointed unto them the Mahr (bridal money given by the husbands to his wife at the time of marriage), then pay half of that (Mahr), unless they (the women) agree to forego it, or he (the husband), in whose hands is the marriage tie, agrees to forego and give her full appointed Mahr. And to forego and give (her the full Mahr) is nearer to At-Taqwa (piety, right-eousness, etc.). And do not forget liberality between yourselves. Truly, Allâh is All-Seer of what you do.

وَإِن طَلَّقْتُمُوهُنَّ مِن قَبْلِ أَن تَمَسُّوهُنَّ وَقَدْ فَرَضْتُمْ لَهُنَّ فَرِيضَةً فَنِصْفُ مَا فَرَضْتُمْ إَلاَّ أَن يَعْفُونَ أَوْ يَعْفُوَ الَّذِي بِيَدِهِ عُقْدَةُ النِّكَاحِ وَأَن تَعْفُواْ أَقْرَبُ لِلتَّقْوَى وَلاَ تَنسَوُاْ الْفَضْلَ بَيْنَكُمْ إِنَّ اللّهَ بِمَا تَعْمَلُونَ بَصِيرٌ

Wa-in tallaqtumoohunna min qabli an tamassoohunna waqad faradtum lahunna fareedatan fanisfu ma faradtum illa an yaAAfoona aw yaAAfuwa allathee biyadihi AAuqdatu alnnikahi waan taAAfoo aqrabu lilttaqwa wala tansawoo alfadla baynakum inna Allaha bima taAAmaloona baseerun

সূরা বাকারা আয়াত ২৩৭
সূরা বাকারা আয়াত ২৩৭

YUSUFALI: And if ye divorce them before consummation, but after the fixation of a dower for them, then the half of the dower (Is due to them), unless they remit it or (the man’s half) is remitted by him in whose hands is the marriage tie; and the remission (of the man’s half) is the nearest to righteousness. And do not forget Liberality between yourselves. For Allah sees well all that ye do.

PICKTHAL: If ye divorce them before ye have touched them and ye have appointed unto them a portion, then (pay the) half of that which ye appointed, unless they (the women) agree to forgo it, or he agreeth to forgo it in whose hand is the marriage tie. To forgo is nearer to piety. And forget not kindness among yourselves. Allah is Seer of what ye do.

SHAKIR: And if you divorce them before you have touched them and you have appointed for them a portion, then (pay to them) ha!f of what you have appointed, unless they relinquish or he should relinquish in whose hand is the marriage tie; and it is nearer to righteousness that you should relinquish; and do not neglect the giving of free gifts between you; surely Allah sees what you do.

KHALIFA: If you divorce them before touching them, but after you had set the dowry for them, the compensation shall be half the dowry, unless they voluntarily forfeit their rights, or the party responsible for causing the divorce chooses to forfeit the dowry. To forfeit is closer to righteousness. You shall maintain the amicable relations among you. GOD is Seer of everything you do.

রুকু – ৩১

সূরা বাকারা আয়াত ২৩৭
সূরা বাকারা আয়াত ২৩৭

২৩৬। তোমাদের স্ত্রীদের স্পর্শ করার পূর্বে অথবা তাদের মোহর ধার্য করার পূর্বে তালাক দিলে কোন পাপ নাই। সম্পদশালী ব্যক্তি তাদের সামর্থ অনুযায়ী এবং অস্বচ্ছল ব্যক্তি তাদের সামর্থ অনুযায়ী ন্যায়সঙ্গত ভাবে তাদের [উপযুক্ত] উপহার দান করবে। ন্যায়বান লোকদের এটাই কর্তব্য।

২৩৭। যদি তোমরা [স্ত্রীদের] স্পর্শ করা পূর্বে তালাক দাও অথচ মোহর ধার্য করা হয়েছে [সেক্ষেত্রে স্ত্রীরা] অর্ধেক মোহর পাবে যদি সে তা মাফ করে না দেয় অথবা সে [স্বামী], যার হাতে বিবাহ বন্ধন রয়েছে ২৬৯, [স্বামীর অর্ধেক প্রাপ্য] মাফ করে দিলে [সেক্ষেত্রে স্বামী] স্ত্রীকে পূর্ণ মোহর দেবে ২৭০। [স্বামীর প্রাপ্য অর্ধেক] মাফ করে দেওয়াই হচ্ছে পুণ্যাত্মার নিকটবর্তী কাজ। এবং নিজেদের মধ্যে বদান্যতার কথা ভুলে যেও না। নিশ্চয়ই তোমরা যা কর আল্লাহ্‌ তা সব দেখেন।

২৬৯। স্ত্রী গমণের পূর্বে যদি তালাক অনুষ্ঠিত হয়, এর দুটি দিক আছে। যে বিয়ের মোহর নির্ধারিত করা হয় নাই কিংবা মোহর নির্ধারিত হয়ে থাকবে। প্রথম অবস্থায় তোমার উপর মোহরের দায়িত্ব আছে বলে মনে করো না। এ ক্ষেত্রে প্রত্যেক ব্যক্তির সামর্থ্য অনুযায়ী স্ত্রীকে উপঢৌকন দেওয়া উচিত।

দ্বিতীয় ক্ষেত্রে মোহরের অর্ধেক শোধ করতে হবে। কিন্তু স্ত্রী ইচ্ছা করলে তার অংশ মাফ করে দিতে পারে অথবা স্বামী তার প্রাপ্য অংশ মাফ করে দিতে পারে। অর্থাৎ এক্ষেত্রে স্ত্রী পূর্ণ মোহর পাবে। যদি সে বদান্যতার প্রেক্ষিতে অর্ধেক না নেয়, তবে তাও ক্ষমার পর্যায়ে পড়ে এবং ক্ষমা করাকে উত্তম ও তাকওয়ার পক্ষে অনুকূলে বলা হয়েছে।

সূরা বাকারা আয়াত ২৩৭
সূরা বাকারা আয়াত ২৩৭

২৭০। এই অবস্থায় নির্ধারিত মোহরের অর্ধেক দেওয়াই বিধেয়। ‘যাহার হাতে বিবাহ বন্ধন রয়েছে’-কথাটির অর্থ স্বামীর হাতে [হানাফী মত অনুসারে] বিবাহ বন্ধন ন্যস্ত। কারণ তালাক দেওয়ার ক্ষমতাও তার হাতে। সুতরাং মোহরের অর্ধেক যেটা তার প্রাপ্য সেটাও ইচ্ছা করলে সে মাফ করে দিতে পারে। এক্ষেত্রে স্ত্রী পূর্ণ মোহর পাবে।

আরও দেখুনঃ 

সূরা বাকারা পর্ব ৭ । সূচি । [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

সূরা বাকারা পর্ব ৬ । সূচি । [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

সূরা বাকারা পর্ব ৫ । সূচি । [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

সূরা বাকারা পর্ব ৪ । সূচি । [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

সূরা বাকারা পর্ব ৩ । সূচি । [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

সূরা বাকারা পর্ব ২ । সূচি । [ গাভী কুরবানী ] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

সূরা বাকারা পর্ব ১ । সূচি । [ গাভী কুরবানী ] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

নাপাকি এবং নাপাকি থেকে পবিত্রতা অর্জনের উপায়

Leave a Comment