সূরা বাকারা আয়াত ২৫৯ | সূরা বাকারা [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । মাদানী সূরা । আল কুরআন

সূরা বাকারা আয়াত ২৫৯ ,আল বাকারা (আরবি ভাষায়: سورة البقرة) মুসলমানদের পবিত্র ধর্মীয় গ্রন্থ কুরআনের দ্বিতীয় সূরা, এর আয়াত সংখ্যা ২৮৬ টি এবং এর রূকুর সংখ্যা ৪০ টি। আল বাকারা সূরাটি মদিনায় অবতীর্ণ হয়েছে।

সূরা বাকারা আয়াত ২৫৯

সূরা বাকারা আয়াত ২৫৯
সূরা বাকারা আয়াত ২৫৯

বাকারা

তুমি কি সে লোককে দেখনি যে এমন এক জনপদ দিয়ে যাচ্ছিল যার বাড়ীঘরগুলো ভেঙ্গে ছাদের উপর পড়ে ছিল? বলল, কেমন করে আল্লাহ মরনের পর একে জীবিত করবেন? অতঃপর আল্লাহ তাকে মৃত অবস্থায় রাখলেন একশ বছর। তারপর তাকে উঠালেন। বললেন, কত কাল এভাবে ছিলে? বলল আমি ছিলাম, একদিন কংবা একদিনের কিছু কম সময়। বললেন,

তা নয়; বরং তুমি তো একশ বছর ছিলে। এবার চেয়ে দেখ নিজের খাবার ও পানীয়ের দিকে-সেগুলো পচে যায় নি এবং দেখ নিজের গাধাটির দিকে। আর আমি তোমাকে মানুষের জন্য দৃষ্টান্ত বানাতে চেয়েছি। আর হাড়গুলোর দিকে চেয়ে দেখ যে, আমি এগুলোকে কেমন করে জুড়ে দেই এবং সেগুলোর উপর মাংসের আবরণ পরিয়ে দেই। অতঃপর যখন তার উপর এ অবস্থা প্রকাশিত হল, তখন বলে উঠল-আমি জানি, নিঃসন্দেহে আল্লাহ সর্ব বিষয়ে ক্ষমতাশীল।

Or like the one who passed by a town and it had tumbled over its roofs. He said: ”Oh! How will Allâh ever bring it to life after its death?” So Allâh caused him to die for a hundred years, then raised him up (again). He said: ”How long did you remain (dead)?” He (the man) said: ”(Perhaps) I remained (dead) a day or part of a day”. He said: ”Nay, you have remained (dead) for a hundred years,

look at your food and your drink, they show no change; and look at your donkey! And thus We have made of you a sign for the people. Look at the bones, how We bring them together and clothe them with flesh”. When this was clearly shown to him, he said, ”I know (now) that Allâh is Able to do all things.”

أَوْ كَالَّذِي مَرَّ عَلَى قَرْيَةٍ وَهِيَ خَاوِيَةٌ عَلَى عُرُوشِهَا قَالَ أَنَّىَ يُحْيِـي هَـَذِهِ اللّهُ بَعْدَ مَوْتِهَا فَأَمَاتَهُ اللّهُ مِئَةَ عَامٍ ثُمَّ بَعَثَهُ قَالَ كَمْ لَبِثْتَ قَالَ لَبِثْتُ يَوْمًا أَوْ بَعْضَ يَوْمٍ قَالَ بَل لَّبِثْتَ مِئَةَ عَامٍ فَانظُرْ إِلَى طَعَامِكَ وَشَرَابِكَ لَمْ يَتَسَنَّهْ وَانظُرْ إِلَى حِمَارِكَ وَلِنَجْعَلَكَ آيَةً لِّلنَّاسِ وَانظُرْ إِلَى العِظَامِ كَيْفَ نُنشِزُهَا ثُمَّ نَكْسُوهَا لَحْمًا فَلَمَّا تَبَيَّنَ لَهُ قَالَ أَعْلَمُ أَنَّ اللّهَ عَلَى كُلِّ شَيْءٍ قَدِيرٌ

Aw kaallathee marra AAala qaryatin wahiya khawiyatun AAala AAurooshiha qala anna yuhyee hathihi Allahu baAAda mawtiha faamatahu Allahu mi-ata AAamin thumma baAAathahu qala kam labithta qala labithtu yawman aw baAAda yawmin qala bal labithta mi-ata AAamin faonthur ila taAAamika washarabika lam yatasannah waonthur ila himarika walinajAAalaka ayatan lilnnasi waonthur ila alAAithami kayfa nunshizuha thumma naksooha lahman falamma tabayyana lahu qala aAAlamu anna Allaha AAala kulli shay-in qadeerun

সূরা বাকারা আয়াত ২৫৯
সূরা বাকারা আয়াত ২৫৯

YUSUFALI: Or (take) the similitude of one who passed by a hamlet, all in ruins to its roofs. He said: “Oh! how shall Allah bring it (ever) to life, after (this) its death?” but Allah caused him to die for a hundred years, then raised him up (again). He said: “How long didst thou tarry (thus)?” He said: (Perhaps) a day or part of a day.” He said: “Nay, thou hast tarried thus a hundred years; but

look at thy food and thy drink; they show no signs of age; and look at thy donkey: And that We may make of thee a sign unto the people, Look further at the bones, how We bring them together and clothe them with flesh.” When this was shown clearly to him, he said: “I know that Allah hath power over all things.”

PICKTHAL: Or (bethink thee of) the like of him who, passing by a township which had fallen into utter ruin, exclaimed: How shall Allah give this township life after its death? And Allah made him die a hundred years, then brought him back to life. He said: How long hast thou tarried? (The man) said: I have tarried a day or part of a day. (He) said: Nay, but thou hast tarried for a hundred

years. Just look at thy food and drink which have not rotted! Look at thine ass! And, that We may make thee a token unto mankind, look at the bones, how We adjust them and then cover them with flesh! And when (the matter) became clear unto him, he said: I know now that Allah is Able to do all things.

SHAKIR: Or the like of him (Uzair) who passed by a town, and it had fallen down upon its roofs; he said: When will Allah give it life after its death? So Allah caused him to die for a hundred years, then raised him to life. He said: How long have you tarried? He said: I have tarried a day, or a part of a day. Said He: Nay! you have tarried a hundred years; then look at your food and drink–

years have not passed over it; and look at your ass; and that We may make you a sign to men, and look at the bones, how We set them together, then clothed them with flesh; so when it became clear to him, he said: I know that Allah has power over all things.

KHALIFA: Consider the one who passed by a ghost town and wondered, “How can GOD revive this after it had died?” GOD then put him to death for a hundred years, then resurrected him. He said, “How long have you stayed here?” He said, “I have been here a day, or part of the day.” He said, “No! You have been here a hundred years. Yet, look at your food and drink; they did not spoil.

সূরা বাকারা আয়াত ২৫৯
সূরা বাকারা আয়াত ২৫৯

Look at your donkey – we thus render you a lesson for the people. Now, note how we construct the bones, then cover them with flesh.” When he realized what had happened, he said, “Now I know that GOD is Omnipotent.”

২৫৯। অথবা সেই লোকটির উপমা। [চিন্তা কর] যে একটি ক্ষুদ্র গ্রামের ধ্বংস স্তুপের মধ্য দিয়ে পথ অতিক্রম করছিলো ৩০৪। সে বলেছিলো, “মৃত্যুর পর কিভাবে আল্লাহ্‌ ইহাকে জীবিত করবেন ?” অতঃপর আল্লাহ্‌ তাকে একশত বৎসর মৃত রাখলেন, তারপর [পুনরায়] তাকে জীবিত করলেন। আল্লাহ্‌ বললেন,

“[এরূপ অবস্থায়] তুমি কতকাল অবস্থান করলে ?” সে বলেছিলো, [সম্ভবতঃ] একদিন বা দিনের কিছু অংশ।” আল্লাহ্‌ বলেছিলেন, “না, বরং তুমি একশত বৎসর অবস্থান করেছ। তোমার খাদ্য ও পানীয়ের প্রতি লক্ষ্য কর, উহাতে দীর্ঘদিনের অবস্থানের কোন চিহ্ন নাই। এবং তোমার গাধাটির দিকে তাকাও। তোমাকে মানব জাতির জন্য নিদর্শন স্বরূপ করবো সে কারণে আরও তাকাও [গাধাটির] অস্থিগুলির প্রতি। কিভাবে সেগুলি আমি সংযোজিত করি এবং মাংস দ্বারা ঢেকে দেই ৩০৫।” যখন তাকে তা সুস্পষ্টরূপে দেখানো হলো, সে বলেছিলো, “আমি জানি যে সকল বিষয়ের উপরে আল্লাহ্‌ সর্বশক্তিমান।”

৩০৪। এই ঘটনাকে বিভিন্নভাবে বর্ণনা করা হয়েছে বিভিন্ন জায়গায়; (১) Ezekiel-এর শুষ্ক হাড়ের দর্শন [Ezekiel. xxxvii ১-১০] (২) জেরুজালেম পরাজিত ধ্বংসপ্রাপ্ত হওয়ার পরে Nehemiah এর জেরুজালেম পরিদর্শন এবং এর পুনঃনির্মাণ [Nehemia ১. ১২-২০]; এবং (৩) ইহুদীদের ধর্মগুরু ও লেখক, সংস্কারকের নাম ‘Uzair or Ezra or Esdras’ যাকে পারস্য সম্রাট জেরুজালেম পরাজয়ের পরে জেরুজালেমে পাঠিয়েছিলেন। তাঁর বহু নীতিবাক্য ইহুদীদের মধ্যে প্রচলিত।

এর মধ্যে নম্বর (১) এ এই শুষ্ক হাড় সম্বন্ধে শুধুমাত্র অল্প কয়েকটি লাইনে ৪টি শব্দ পাওয়া যায়। (২) এবং (৩) নম্বরে নির্দিষ্টভাবে এ সম্বন্ধে কিছু উল্লেখ নাই। কুরআন শরীফের বাণী সর্বকালের সর্বযুগের, সর্ব সাধারণের জন্য। কোনও বিশেষ ঘটনার মাধ্যমে এই সার্বজনীন উপদেশ বা বাণী প্রচার করা হয়েছে। এখানেও গল্পছন্দে যে নীতিপূর্ণ উপদেশ (similitude) দেওয়া হচ্ছে তা যুগ-কাল অতিক্রান্ত, সর্বজীন; এবং আমাদের সেভাবেই তা গ্রহণ করা উচিত। এখানে মাওলানা ইউসুফ আলীর মতে এই উপদেশ কোনও ব্যক্তিগত নয়, এই গল্পের মাধ্যমে যুগে যুগে এক এক জাতির মৃত্যু ও পুনরুত্থানের কথা ব্যক্ত করা হয়েছে।

৩০৫। এই আয়াতের গল্পটি এরূপ যে, এক লোক ছিল। এক বার চলতে চলতে সে এমন এক জনপদের উপর দিয়ে অতিক্রম করলো যে সে শহর এবং তার সভ্যতা সম্পূর্ণ ধ্বংসপ্রাপ্ত। এই দেখে তার মনে সন্দেহের উদ্রেক হলো, এই ভেবে যে, কীভাবে এই শহর পূণঃর্জীবিত হবে ? কিন্তু আল্লাহ্‌ সর্বশক্তিমান। পৃথিবীর ইতিহাস বলে, যুগে যুগে আল্লাহ্‌ বহু জাতি বহু সভ্যতা ধ্বংস করেছেন, আবার পুনঃর্জীবিত করেছেন। শেষ বিচারের দিনেও ঠিক সেভাবেই প্রত্যেক মানুষকে পুনঃর্জীবিত করবেন। ঐ ব্যক্তি ১০০ বছর মৃত থেকে পুনরায় জীবিত হলো,

কিন্তু তার কাছে ব্যাপারটি মনে হলো ক্ষণিক মাত্র। তার খাদ্য ও পানীয় আল্লাহ্‌র হুকুমে একশত বছর অবিকৃত ছিল কিন্তু তার গাধাটি, শুধুমাত্র যে মারাই গিয়েছিল তাই-ই নয়, তার শুধুমাত্র কয়েকটি শুকনা হাড় অবশিষ্ট ছিল। ঐ লোকটির চোখের সামনেই আল্লাহ্‌ গাধাটিকে মাংস রক্তে আবৃত করে পুনঃর্জীবিত করলেন।

সূরা বাকারা আয়াত ২৫৯
সূরা বাকারা আয়াত ২৫৯

[সর্বজনীন উপদেশ হচ্ছেঃ (১) আল্লাহ্‌ হচ্ছেন সময়ের উর্ধ্বে। বর্তমান যুগে বিজ্ঞানীরাও এ কথা বলেন যে, সময়ের ধারণা আপেক্ষিক মাত্র। কসমিক ক্যালেন্ডারের বছরের ধারণা আমাদের দৈনন্দিক জীবনের বছরের ধারণা এক নয়। (২) সময়ের ব্যাপার বিভিন্ন বস্তুকে বিভিন্নভাবে প্রভাবান্বিত করে। (৩) জীবন মৃত্যুর মালিক একমাত্র আল্লাহ। (৪) মানুষের ক্ষমতার দম্ভের কোনও মূল্য নাই আল্লাহ্‌র চোখে। আল্লাহ্‌ মানুষের ঈমান বা তার প্রতি আন্তরিক বিশ্বাসের মূল্য দেন।]

আরও দেখুনঃ 

সূরা বাকারা পর্ব ৭ । সূচি । [ গাভী কুরবানী] সূরা নং ২ । পবিত্র কুরআন ।

নাপাকি এবং নাপাকি থেকে পবিত্রতা অর্জনের উপায়

 

 

 

Leave a Comment